বায়ুদূষণ রোধে চীনে জাতীয় নেটওয়ার্ক !

Print Friendly

(রয়টার্স, এপি)
tl51335305
ঢাকা: চীনের উত্তরাঞ্চলে বায়ুদূষণ ক্রমেই বাড়ছে, যা সরকারের চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ এ জন্য বায়ুদূষণের প্রভাব নির্ণয়ে জাতীয় নেটওয়ার্ক স্থাপন করতে যাচ্ছে দেশটি৷ এমনটাই সম্প্রতি জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা ডাব্লিউএইচও৷

ডাব্লিউএইচও-র রিপোর্ট অনুযায়ী, কোনো জায়গায় দিনে পার্টিকুলেট ম্যাটার বা পিএম২.৫-এর মাত্রা ২০-র বেশি হওয়া উচিত নয়৷ আর এই মাত্রা ৩০০-এর বেশি হলে তা মারাত্মক৷ অথচ গত সপ্তাহে চীনের উত্তর পূর্বাঞ্চরীয় হাইলংজিয়াং প্রদেশের রাজধানী হার্বিনের কয়েকটি এলাকায় পিএম২.৫-এর রিডিং ১০০০-এ পৌঁছেছিল, যা ভয়াবহ৷
গত জুলাই মাসে প্রকাশিত একটি আন্তর্জাতিক গবেষণার রিপোর্ট অনুযায়ী, গত সাড়ে পাঁচ বছরে চীনের দক্ষিণাঞ্চলের তুলনায় উত্তরাঞ্চলে বায়ু দূষণের কারণে মানুষের আয়ু কমে গেছে৷ এছাড়া, শহরাঞ্চলে জনসংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় কেবল বায়ু নয়, পানি ও মাটিতে দূষণ হচ্ছে, যা চীনা সরকারের উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে৷
গত কয়েক বছর ধরে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে সরকার বেশ কিছু পদক্ষেপ ঘোষণা করলেও উত্তর ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলে তার বাস্তবায়ন খুব একটা চোখে পড়েনি৷ এ কারণেই মানব স্বাস্থ্যের উপর মারাত্মক বায়ু দূষণের সুদুরপ্রসারী প্রভাব সম্পর্কে জানতে এবং তা পর্যবেক্ষণ করতে পাঁচ বছরের জন্য একটি জাতীয় নেটওয়ার্ক বসাতে যাচ্ছে সোমবার এ তথ্য জানিয়েছে চীনের গণমাধ্যম৷ মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পার্টিকুলেট ম্যাটার বা পিএম২.৫ সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করবে এই নেটওয়ার্ক৷
জানা গেছে, যেসব শহরে বায়ু দূষণ সবচেয়ে বেশি, নেটওয়ার্কটি সবার আগে সেসব স্থানের তথ্য সংগ্রহ করবে এবং সেইসাথে স্থানীয় আবহাওয়া এবং বাসিন্দাদের রোগ ও মৃত্যু সংক্রান্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে সিদ্ধান্তে পৌঁছাবে৷

সবুজপাতা ডেস্ক

Comments