২৫ হাজার গাছ কাটার সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি

Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা : বাংলাদেশ রেলওয়ে সিলেটের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের পাশের ২৫ হাজার গাছ কাটার যে প্রস্তাব দিয়েছে তা বাতিলের দাবি জানিয়েছে পরিবেশবাদী সংগঠনগুলো। এছাড়া, সেখান থেকে রেলপথ সরিয়ে ফেলাসহ সাত দফা দাবিও তোলা হয়।

শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানানো হয়।
বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), বাংলাদেশ আইনবিদ সমিতি (বেলা) ও মৌলভীবাজারের লাউয়াছড়া বন ও জীববৈচিত্র রক্ষা আন্দোলন যৌথ এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

সংবাদ সম্মেলনে বাপা সিলেট শাখার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম বলেন, ‘লাউয়াছড়াকে সরকার ১৯৯৬ সালে জাতীয় উদ্যান হিসেবে ঘোষণা করে। মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলায় এক হাজার ২৫০ হেক্টরের এ বন জীববৈচিত্রে সমৃদ্ধ। এখানে ৪৬০ প্রজাতির দুর্লভ উদ্ভিদ ও প্রাণী আছে। এর মধ্যে ১৬৭ প্রজাতির উদ্ভিদ, ৪ প্রজাতির উভচর, ৬ প্রজাতির সরীসৃপ, ২৪৬ প্রজাতির পাখি, ১৭ প্রজাতির কীট-পতঙ্গ ও ২০ প্রজাতির স্তন্যপায়ী প্রাণী দেখা যায়।’

তিনি বলেন, ‘সুন্দরবনসহ দেশের অন্যান্য বনাঞ্চল ধ্বংসের জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অপতৎপরতার অংশ হিসেবে লাউয়াছড়া সংরক্ষিত বনাঞ্চল বিরান করারও ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি বাংলাদেশ রেলওয়ে অবাধ ট্রেন চলাচল নিশ্চিত করার নামে লাউয়াছড়ার জাতীয় উদ্যান ২৫ হাজার বৃক্ষ কেটে ফেলার প্রস্তাব তুলেছে।’

সংবাদ সম্মেলনে বাপার সহ-সভাপতি ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী বলেন, ‘বাংলাদেশ রেলওয়ে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের যে ২৫ হাজার গাছ কাটার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এ সিদ্ধান্তের পরিবর্তন আনতে না পারলে বনের সর্বনাশ হয়ে যাবে।’

লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানকে অভিভাবকহীন উল্লেখ্য করে তিনি বলেন, ‘লাউয়াছড়াকে একটি জাতীয় উদ্যান ও অভয়ারণ্য ঘোষণার পরও এরপর প্রতি যে অবিচার হতে যাচ্ছে তার পরিপ্রেক্ষিতে বলবো, আমাদের খাতা-কলম নীতিতে একটা আর কাজের বেলা অন্যটা- এ ধরনের পরিস্থিতির সম্মুখীন আমরা।’

বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির নির্বাহী পরিচালক সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান বলেন, ‘সরকারের সহ-বন ব্যবস্থাপনা কমিটির বিষয়টিও বিভ্রান্তিকর। এ কমিটিতে গাছচোর আছেন। যেখানে বনবিভাগ নিজেরা চুরি করে সেখানে যে অন্যের চুরি কীভাবে ঠেকাবে? যে প্রধান বন সংরক্ষকের বালিশের ভেতর টাকা পাওয়া যায় তার উত্তরসূরীদের দিয়ে বন রক্ষা হবে না।’

সংবাদ সম্মেলনে বাপার সিলেট শাখার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে সাতটি দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলোর মধ্যে আছে- বাংলাদেশ রেলওয়েকে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের গাছ কাটার প্রস্তাব অবিলম্বে প্রত্যাহার এবং রেলপথ সরিয়ে ফেলার ব্যবস্থা করা। শ্রীমঙ্গল ভানুগাছ সড়কের অংশ লাউয়াছড়া থেকে স্থানান্তর ও অনিয়ন্ত্রিত পর্যটন বন্ধ করা। বনকে বাগান ও পার্কে পরিণত করার প্রচেষ্টা বন্ধ করা।

সংবাদ সম্মেলনে পরিবেশবাদী সংগঠনগুলোর নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Comments