নদী দূষণে শুধু জরিমানা নয় জেল হবে-নৌ-পরিবহন মন্ত্রী

Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা, ২৯ মার্চঃ  শিল্প কারখানার বর্জ্যে দেশের অসংখ্য নদনদী মরতে বসেছে আজ। এতোদিন বিধান ছিল জরিমানার এতে কোন ফল না মেলায় এবার কারাদণ্ডের বিধান রেখে আইন করার চিন্তা করছে সরকার।

রোববার সচিবালয়ে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে নদ-নদী রক্ষা সংক্রান্ত টাস্কফোর্সের বৈঠক শেষে একথা বলেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান। তার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আইনমন্ত্রী আনিসুল হকসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘নদীতে শিল্প কলকারখানার বর্জ্য পড়ছে কিন্তু কারখানার মালিকরা জরিমানার টাকা দিয়ে যায়। এক্ষেত্রে কোটি টাকা দিতেও তাদের কোনো আপত্তি থাকে না। তাই এ অপরাধের জন্য জারিমানার পাশাপাশি জেল দেয়ার বিধান রেখে আইন করা হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘যতদূর সম্ভব বুড়িগঙ্গা নদীর আদি চ্যানেল উদ্ধার করা হবে। ইতিমধ্যে এখানে প্রায় ৩৫ বিঘা জমি উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত জায়গায় সবুজ বনায়ন করা হবে। যাতে আর কেউ দখল করতে না পারে। আর এখানে হাতিরঝিলের মতো করে সৌন্দর্য বর্ধন করারও পরিকল্পনা রয়েছে।’

র‌্যারের হেডকোয়ার্টার্স করার জন্য জায়গা বরাদ্দের কথা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘জমি এমনভাবে দেয়া হবে যাতে নদীর কোনো ক্ষতি না হয়।’

তুরাগ ও বালু নদীর সীমানা নির্ধারণের বিষয়টি বুঝে নেয়ার কথা থাকলেও জানিয়ে শাজাহান খান বলেন, ‘এখানে এখনো সমস্যা আছে। এসব নদীর বিভিন্ন জায়গায় রাতের আঁধারে কেউ কেউ পিলার তুলে আরো সামনে পুঁতে রেখেছে আবা কেউ তুলে নিয়ে গেছে। তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

আদি বুড়িগঙ্গা উদ্ধার করা গেলে ওই এলাকায় বিপ্লব সাধিত হতো কিন্তু সেটা আর সম্ভ হচ্ছে না বলেও মন্তব্য করেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রী।

সবুজপাতা প্রতিবেদন

Comments