আবারও দখলে ধানমন্ডি মাঠ

Print Friendly, PDF & Email

সবুজপাতা ডেস্ক, ২৭ মে: সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত ধানমন্ডি খেলার মাঠটি কে বা কারা আবারও বন্ধ করে দিয়েছে। তালা ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে প্রধান ফটকে। খুলে ফেলা হয়েছে ঢাকা সিটি করপোরেশনের লাগানো ‘সর্ব সাধারণের জন্য উন্মুক্ত’ লেখা সাইনবোর্ডটিও।

গতকাল বিকেলে বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটের সভাপতি ও ধানমন্ডি পরিবেশ উন্নয়ন জোটের কেন্দ্রীয় নেতা মোবাশ্বের হোসেনের উদ্ধৃতি দিয়ে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)-এর সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হাবিব এক ক্ষুদে বার্তায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ধানমণ্ডি মাঠ দখলমুক্তের আন্দোলন চলছে দীর্ঘদিন থেকেই। মাঠের চারপাশে প্রাচীর দিয়ে এই মাঠের দখল আরও আগেই নেয় শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। সম্প্রতি মাঠের ভেতরে স্থাপনা তৈরি করায় আবারও মাঠ দখলমুক্ত করার আন্দোলনে নামেন পরিবেশবাদীরা। পরে হাইকোর্টের নির্দেশের কারণে কাজ বন্ধ রাখতে বাধ্য হয়।

মাঠটি নিয়ে হাইকোর্টের স্পষ্ট নির্দেশনা রয়েছে। ২০০৪ সালে হাইকোর্ট মাঠ রক্ষায়ডিসিসিকে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা দেন। ২০১১ সালের ১৫ মার্চ চূড়ান্ত আদেশদেন। তাতে ডিসিসি ও রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) ধানমন্ডির ওই খেলারমাঠ থেকে সব ধরনের অবৈধ স্থাপনা ১৫ দিনের মধ্যে অপসারণ ও সর্বসাধারণের জন্যউন্মুক্ত রাখতে বলা হয়। পরিবেশবাদীরা মাঠ দখল মুক্ত রাখতে আন্দোলন করে যাচ্ছেন।

10259409_10152205989529597_976717030_n

এই আন্দোলনে অংশগ্রহণ করে সবুজপাতাসহ বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), বাংলাদেশস্থপতি ইনস্টিটিউট (আইএবি), বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতি (বেলা), গ্রিনভয়েস, সবুজ পাতা, নিরাপদ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন, ডব্লিউবিবি ট্রাস্ট, ঢাকাযুব ফাউন্ডেশন, আদি ঢাকাবাসী ফোরাম, পুরান ঢাকা পরিবেশ উন্নয়ন ফোরাম, বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যাসোশিয়েশন, সিডাস, সেবা, পিস, উন্নয়ন ধারা ট্রাস্ট, পরিবর্তন চাই, আইন ও শালিস কেন্দ্র, সেন্টার ফর আরবানস্টাডিজ, নিজেরা করি, নাগরিক উদ্যোগ, সুন্দর জীবন, বিআইপি, সুজন, ব্লুপ্ল্যানেট ইনিশিয়াটিভ, সিটিজেন রাইটস মুভমেন্ট, বারসিক, জাতীয় অধূমপায়ীফোরাম, সার্চ স্কেটিং ক্লাব, ডক্টরস ফর হেলথ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট (ডেন), মাস্তুল, রক্ত সৈনিক, মেঘ রোদ্দুর খেলাঘর আসর, ছাত্র ইউনিয়নসহ ২০-২৫টিরঅধিক পরিবেশবাদী ও সামাজিক সংগঠন।

সবশেষ হাইকোর্টের রায় বাস্তবায়ন করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপরোরেশন। কিছুদিন দখলমুক্ত থাকার পর আবারও কে বা কারা বন্ধ করে দিল মাঠটি।

Comments