হাওয়াই চলবে শতভাগ নবায়নযোগ্য শক্তিতে !

Print Friendly

সবুজপাতা ডেস্ক, ২৪ জুনঃ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে হাওয়াই সর্বপ্রথম শতভাগ বিদ্যুৎ শক্তি উৎপাদনে নবায়নযোগ্য শক্তিকে ব্যবহার করার পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে। এ বছরের মে মাসে হাওয়াইয়ান আইনসভায় এক জরুরী বৈঠকে উক্ত দেশের সংসদ সদস্যবৃন্দের উপস্থিতিতে ৭৪-২ ভোটের পরিপ্রেক্ষিতে প্রাথমিকভাবে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সিদ্ধান্তে উল্লেখ করা হয় যে, আগামী ২০৪৫ সালের মধ্যে দেশের অভ্যন্তরে সরবরাহকৃত সকল প্রকার বিদ্যুৎ উৎপাদনে নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যবহার নিশ্চিত করা হবে যা একইসাথে দূষণমুক্ত বিদ্যুৎ উৎপাদনের পাশাপাশি দেশটির দীর্ঘমেয়াদী অর্থনৈতিক অবকাঠামো নিশ্চিত করবে। সামগ্রিক প্রক্রিয়া সফলভাবে সম্পন্ন হলে জুন মাসের মধ্যেই হাওয়াই রাষ্ট্রপ্রধান ডেভিড এইজ এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

দেশটির সকল বিদ্যুৎ শক্তি উৎপাদনে নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যবহার হাওয়াই সরকারের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ। কারণ, বর্তমানে হাওয়াই-এর প্রায় ৮০ শতাংশ বিদ্যুৎ উৎপাদন উচ্চমূল্যে আমদানিকৃত তেলের উপর নির্ভরশীল। যার ফলপ্রসূ হিসেবে হওয়াই সরকার প্রতিবছর বিদ্যুৎ খাতের জন্য নির্ধারিত বাজেটের চেয়ে অতিরিক্ত ১৭৫ শতাংশ ভর্তুকি বহন করে আসছে এবং পাশাপাশি হাওয়াইনদেরও সরবরাহকৃত বিদ্যুৎ উচ্চ মূল্যে ক্রয় করতে হচ্ছে। নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যবহার বাস্তবায়নের মাধ্যমে বিদ্যুৎ খাতে বাজেটের এই ঘাটতি পূরণের পাশাপাশি সুলভ মূল্যে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করা সম্ভব হবে বলে এক বিবৃতে জানা গেছে। এ বিষয়ে হাওয়াই-এর শক্তি কমিশন কার্যালয়ের পরিচালক মার্ক গ্লিক বলেন “নবায়নযোগ্য শক্তি ব্যবহারের এই উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপের মাধ্যমে দেশটির উচ্চমূল্যে আমদানিকৃত তেলের প্রতি নির্ভরশীলতা অনেক কমিয়ে আনবে এবং পাশাপাশি দেশটির পরিবেশগত ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে।”

প্রাথমিকভাবে গৃহীত এ সিদ্ধান্তে ধারনা করা হচ্ছে যে, নবায়নযোগ্য শক্তিকে ব্যবহার করে হাওয়াই আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে ৪০ শতাংশ, ২০৪০ সালের মধ্যে ৭০ শতাংশ এবং ২০৪৫ সালের মধ্যে শতভাগ বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে সক্ষম হবে। ইতিমধ্যে দেশটির ১২ শতাংশ বিদ্যুৎ সৌরশক্তি থেকে উৎপন্ন হচ্ছে। তবে পরবর্তীতে সৌরবিদ্যুৎসহ নবায়নযোগ্য শক্তির উৎস হিসেবে জলবিদ্যুৎ, জৈবউচ্ছিষ্ট, ভূগর্ভস্থ তাপমাত্রা, হাইড্রোজেন জ্বালানী, সামুদ্রিক জোয়ার-ভাটাকেও ব্যবহার করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবে বলে জানা গেছে।Hawaii-renewable-energy-650x371

তবে হাওয়াই বিশ্ববিদ্যালয়ের “Renewable Energy and Island Sustainability Group”-এর পরিচালক এন্থনি কুহ বলেন, “নবায়নযোগ্য শক্তিকে ব্যবহার করে ১০০ শতাংশ বিদ্যুৎ উৎপাদন করা সম্ভব হবে তখনই যখন দেশটির প্রযুক্তি ব্যবস্থা আরও জোরদার হবে এবং উৎপাদিত শক্তির সংরক্ষণ নিশ্চিত করতে পারবে।” তিনি মনে করেন, নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যবহারের ক্ষেত্রে রাষ্ট্রের বর্তমান যে প্রযুক্তি ব্যবস্থা আছে তা এখনও তেমন উন্নত নয়। তাই গৃহীত এ পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করতে হাওয়াই সরকারের আরও কিছু সময় লাগবে।

ইতিমধ্যে হাওয়াই সরকার এবং হাওয়াই ইলেকট্রিক কোম্পানি নতুন এক চুক্তিতে উপনীত হয়েছে। এ চুক্তির পরিপ্রেক্ষিতে হাওয়াই ইলেকট্রিক কোম্পানি নবায়নযোগ্য বিদ্যুৎ ব্যবহার করে হাজার হাজার বাড়িতে ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যবস্থা করবে। বর্তমানে ওহতে যে ৮টি সোলার ফার্মের পরিকল্পনা করা হয়েছে তা সমগ্র দেশের বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য উপযোগী করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে কোম্পানিটি উৎপাদিত শক্তি সঞ্চয়ের জন্য মোবাইল ফোনে ব্যবহৃত একই প্রযুক্তির ব্যাটারিকে বৃহৎ আকারে ব্যবহার করবে বলে জানা গেছে। এটি এক প্রকার লিথিয়াম আয়ন টাইপের উন্নত প্রযুক্তির ব্যাটারি যা অন্যান্য অন্যান্য ব্যাটারির তুলনায় অধিক শক্তি সঞ্চয় করে রাখতে সক্ষম।

নবায়নযোগ্য শক্তি দারা চালিত যে কোন পাওয়ার প্ল্যান্টের স্থাপনা অন্যান্য পাওয়ার প্ল্যান্ট স্থাপনার চেয়ে অনেক বেশি ব্যয়বহুল। তবে আশার কথা হচ্ছে, দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনায় এ ধরনের পাওয়ার প্ল্যান্ট অধিক ফলপ্রসূ ও সাশ্রয়ী। এছাড়া হাওয়ায় সরকারের এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের ফলে বিশ্ব পরিবেশ সংরক্ষণে এক নতুন সম্ভবনার সৃষ্টি হবে যা পরবর্তীতে অন্যান্য রাষ্ট্রকেও এ ধরনের পরিকল্পনা গ্রহণে আগ্রহী করে তুলবে।

নিউইয়র্ক টাইমস

Comments