২০টি গাছ কেটে নিল স্থানীয় প্রভাবশালী

Print Friendly, PDF & Email

সবুজপাতা ডেস্ক, ২ ফেব্রুয়ারীঃ  বরিশালের আগৈলঝারা উপজেলার সোমাইরপাড় গ্রামে এক ব্যক্তির ২০টি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে। গত শনিবারের এ ঘটনায় ওই দিন আগৈলঝারা থানায় একটি মামলা হয়েছে। এই গাছের দাম আনুমানিক দুই লাখ টাকা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পৈতৃক সূত্রে আগৈলঝারা উপজেলার জেএল ১০১ জোবারপাড় মৌজার এসএ ৬৫৯ খতিয়ানের ১৫১ নম্বর দাগের ৩২ শতাংশ সম্পত্তির মালিক সোমাইরপাড় গ্রামের সত্যরঞ্জন বাড়ৈয়ের ছেলে সুধাংশু শেখর বাড়ৈ। ওই সম্পত্তির বৈধ মালিক হিসেবে তিন পুরুষ ধরে সম্পত্তি ভোগ করছিলেন সুধাংশ শেখর বাড়ৈরা। সেখানে তাঁর পূর্বপুরুষের লাগানো গাছের দাম অনেক বেশি। এক বছর ধরে স্থানীয় প্রভাবশালী ভদ্রকান্ত বাড়ৈ জমির মালিকানা দাবি করছেন।

সুধাংশু শেখর বাড়ৈ অভিযোগ করেন, ভদ্রকান্ত বাড়ৈ মাঝেমধ্যে লোকজন নিয়ে এসে বিক্রির জন্য গাছ দেখাতেন। শনিবার সকালে ভদ্রকান্ত বাড়ৈর নেতৃত্বে ১৫-২০ জন মেহগনি, জামসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কাটা শুরু করেন। তাঁরা তিন-চার ঘণ্টা ধরে প্রায় দুই লাখ টাকার গাছ কেটে ফেলেন। বিষয়টি আগৈলঝারা থানাকে জানানো হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগে ১৫-২০টি গাছ নছিমনে করে নিয়ে যান তাঁরা। দুপুরে পুলিশ আসার খবর পেয়ে বাকি গাছগুলো ফেলে রেখে সবাই পালিয়ে যান।

গাছ কেটে নেওয়ার কথা স্বীকার করে ভদ্রকান্ত বাড়ৈ বলেন, একসময় ওই সম্পত্তি তাঁদের পূর্বপুরুষদের ছিল। মাঠ জরিপে সম্পত্তি তাঁর নামে রেকর্ড হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

আগৈলঝারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় সুধাংশু শেখর বাড়ৈ বাদী হয়ে ভদ্রকান্ত বাড়ৈসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments