মিজান টাওয়ার সিলগালা, যেকোনো মুহূর্তে ধ্বসের আশঙ্কা

Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা, ২৯ মে; রাজধানীর কল্যাণপুরের মিজান টাওয়ারে আবারো বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এর আগে বুধবার রাতে সেফটিক ট্যাঙ্ক বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। ওই সময় ৭ জন আহত হন। বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া ৫টার দিকে দ্বিতীয়বার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিস এবং পুলিশ পৌঁছেছে। এদিকে ভবনটি সিলগালা করে দেয়া হয়েছে। যেকোনো মুহূর্তে ধসে পড়তে পারে কল্যাণপুরের মিজান টাওয়ার। তাই ওই ভবনে অবস্থান নিষিদ্ধ ঘোষণা করছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) বৃহস্পতিবার বিকালে দ্বিতীয় বারের মত ভবনটি হেলে পড়ায় এমন ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

mizan-tower-kalyanpur-dhakaবৃহস্পতিবার দ্বিতীয়বার বিস্ফোরণের পরপরই ভবটি পুলিশ ঘেরাও করে রেখেছে। ভবনটিতে কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। দুই বার বিস্ফোরণের পরও ভবনের নিচে প্রচুর গ্যাস জমে থাকায় ভবনটি ধসে পড়তে পারে অথবা আবারও বিস্ফোরণ ঘটতে পারে বলে ডিএমপির পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। এ জন্য ভবনের আশপাশের সব ধরনের অবস্থান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসসহ বিভিন্ন সংস্থার সদস্যরা দুর্ঘটনার আশঙ্কায় সতর্ক অবস্থান নিয়েছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে প্লানিং কমিটির সদস্য আব্দুল মান্নানের নেতৃত্বে একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
তবে তারা এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি। আগামীকাল বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যলয় (বুয়েট) থেকে একটি বিশেষজ্ঞ দলের মিজান টাওয়ার পরিদর্শনের কথা রয়েছে।

এদিকে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার সময় মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সালাউদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, গতকালের মতো আজকের বিস্ফোরণের পরপরই ফায়ার সার্ভিস, রাজউক, তিতাস গ্যাসসহ বিভিন্ন সংস্থার সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। আরও সুক্ষ্মভাবে তদন্ত করে ভবনের সার্বিক অবস্থা সর্ম্পকে বিস্তারিত বলা যাবে। এ ঘটনায় মালিক পক্ষের তিনজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের মাধ্যমে মালিকের সঙ্গে যোগাযোগ করলে মালিক জানিয়েছেন, তিনি নিজ উদ্যোগে ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় ভবনের নিচের গ্যাস সরাবেন।

তবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে তিতাস গ্যাসের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বহুতল ভবনটির নিচে সুয়ারেজ ট্যাংক অথবা আরও নিচে প্রচুর গ্যাস জমে আছে বলে ধারণা করছি। এখনই গ্যাস বের করার ব্যবস্থা না করলে যে কোনো মুহূর্তে ভবনটি ধসে পড়তে পারে। এ ঘটনায় বুধবার রাতেই রাজউকের পক্ষ থেকে মিরপুর থানায় একটি জিডি করা হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদন

Comments