সিগারেট ছা্ড়তে চান ?

Print Friendly, PDF & Email

fgytryrtyrey

 

 

[highlight]সবুজ পাতা ডেস্ক: [/highlight]

মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর একটি অভ্যাস ধূমপান। চাইলেই যে কেউ ছাড়তে পারে এই বদ অভ্যাসটি। আপনাকে সাহায্য করতে পারে নিচের পরামর্শগুলো।

milk

 

[highlight]দুধ:[/highlight]

ডিউক ইউনিভার্সিটি পরিচালিত এক গবেষণায় জানা যায়, সিগারেট টানার ইচ্ছা দমন করে দুধ। গবেষকরা দাবি করেছেন, দুধ ধূমপায়ীর মুখে অন্য রকম এক স্বাদ নিয়ে আসে, যা তাকে সিগারেটের প্রতি বীতস্পৃহ করে তোলে। সিগারেটের জন্য হাঁসফাঁস করলে এক গ্লাস দুধ খেয়ে নিন; এর উচ্চমাত্রার প্রোটিন আপনাকে নিকোটিন গ্রহণে বাধা দেবে। সুতরাং সিগারেট খাওয়ার চিন্তা মাথায় আসতেই দুধে চুমুক দেয়ার চেষ্টা করবেন। খেতে পারেন দই কিংবা পনিরও।

 

Carrot-Vegetable

 

[highlight]গাজর:[/highlight]

যুক্তরাষ্ট্র্রের মেরিল্যান্ডের এগ্রিকালচারাল রিসার্চ সার্ভিসের উদ্ভিদবিদ ড. জেমস এ ডিউক বলেন, সিগারেট যদি ক্যান্সারের শলাকা হয়, তবে গাজর ক্যান্সারবিরোধী খাবার। তিন প্যাকেট সিগারেট ছাড়া ড. ডিউক চলতে পারতেন না। সেই তিনি দাবি করেছেন, সিগারেট ছাড়তে দারুণ ভূমিকা রাখে গাজর। এর ক্যারোটিনয়েডস উপাদান শুধু সিগারেটের নেশাই তাড়ায় না, ক্যান্সারও প্রতিরোধ করে। তাহলে এবার থেকে সিগারেটের বদলে গাজর রাখুন। নেশা পেলে গাজরে কামড় বসান।

 

Sunflower-Seed-Pictures

 

[highlight]সূর্যমুখী বীজ:[/highlight]

তামাকের মতোই মাদকতা আনে সূর্যমুখী বীজ— বলছেন গবেষকরা। এ বীজ অ্যাড্রেনালাইন হরমোনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। এ রাসায়নিক উপাদান শরীরকে চাপ মোকাবেলায় প্রস্তুত করে, মনে প্রশান্তি আনে। এর ভিটামিন ‘বি’ স্নায়ুবিক কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়, মস্তিষ্কে পর্যাপ্ত পুষ্টির জোগান দেয়। সুতরাং সিগারেট ছাড়তে ইচ্ছুক ব্যক্তিরা এ বীজ খেতে পারেন। তবে একবারে বেশি খাবেন না।

 

 

 

[highlight]কলা:[/highlight]

অধুনা এক গবেষণায় জানা যায়, কলাও সিগারেট ছাড়তে উদ্বুদ্ধ করে। সব সিগারেট ত্যাগী মানুষ প্রথমদিকে অবসাদে ভোগেন এবং তাদের মধ্যে শারীরিক দুর্বলতাও দেখা দেয়। এমন পরিস্থিতিতে কলার ভিটামিন এবং মিনারেলগুলো শরীরে তাত্ক্ষণিক শক্তি জোগায়। একই সঙ্গে মানসিক চাপও কমিয়ে দেয়। সিগারেট খাওয়ার ইচ্ছা জাগলে একটি কলা খেয়ে নিন। ইচ্ছা দমন হবে।

 

shutterstock_99478112

 

[highlight]কমলার জুস:[/highlight]

ভিটামিন ‘সি’ সরবরাহে বাধা দেয় সিগারেট। ফলে ভুগতে থাকেন অপুষ্টিতে। অতএব এ বদভ্যাস থেকে মুক্তি পেতে বেশি বেশি কমলার জুস খান। শুধু তাই-ই নয়, কমলার জুস নিকোটিন গ্রহণেও নিরুত্সাহিত করে। জুস না করেও খেতে পারেন কমলা, লেবু ও ডালিম। এসব ফলে ভিটামিন ‘সি’-এর পাশাপাশি ভিটামিন ‘এ’ও পেয়ে যাবেন।

 

mint-tea

 

[highlight]মারজোরাম চা:[/highlight]

এ ধরনের চায়ে পাইন গাছ এবং বাতাবি লেবুর সুগন্ধ পাওয়া যায়। এটি মূলত ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলের চা। ফার্মাসিতে পেয়ে যাবেন এ ধরনের চা। মারজোরাম চা খাওয়ার পর গলা শুকিয়ে আসে। এ কারণে সিগারেট খেতে মজা পাওয়া যায় না। এক চামচ মারজোরাম চা এক কাপ পানিতে ১৫ মিনিট ফুটিয়ে পান করুন। যখনই সিগারেট খেতে চাইবেন, চুমুক দেবেন মারজোরাম চায়ে। নেশা পালাবে।

 

 

H13

 

 

[highlight]লবঙ্গ:[/highlight]

এ মসলা সম্পূর্ণরূপে সিগারেট ছাড়তে সাহায্য না করলেও এর সংখ্যা কমিয়ে আনে। দিনের প্রথম সিগারেট খাওয়ার আগে লবঙ্গ চুষতে পারেন। ফলে নিকোটিনের স্বাদ মুখে দীর্ঘক্ষণ লেগে থাকবে, যা আরেকটি সিগারেট খাওয়ার বাসনা কমিয়ে দেবে।

 

seasalt4

 

 

[highlight]লবণজাতীয় খাবার:[highlight]

গবেষণায় দেখা গেছে, সিগারেটের বাসনা কমিয়ে দেয় লবণ কিংবা ঝালজাতীয় খাবার। সিগারেটের নেশা পেলে এক চিমটি লবণ খেয়ে নিন। নেশা ছুটে যাবে। সিগারেট ছাড়তে এটা দ্রুততম পদ্ধতি।

blog-image-CHEWING-GUM1

 

[highlight]চুইংগাম:[/highlight]

প্রায় সবারই জানা আছে, চিনিমুক্ত চুইংগাম কিংবা চকোলেট সিগারেটের আসক্তি দূর করে। এসব খাবার মুখ ব্যস্ত রাখে। সিগারেট ধরানোর আগে একটু অপেক্ষা করে মুখে চুইংগাম, ক্যান্ডি পুরে নিন।

সুতরাং সিগারেট ছাড়তে পুষ্টিকর এবং স্বল্প ক্যালরির খাবারের বিকল্প নেই। পাশাপাশি লাইফস্টাইলের ধরন পাল্টে ফেলুন। রুটিন চেঞ্জ করুন। ব্যায়াম করুন।

 

কৃতজ্ঞতা: রাহুল সরকার, বণিক বার্তা

Comments