অপরিকল্পিত নির্মাণঃ টিনশেড দোতলা দেবে নিহত ১২

Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা, ১৬ এপ্রিল : গতকাল বুধবার রাজধানীর রামপুরায় বউবাজার ঝিলপাড়ে নির্মাণ করা একটি টিনশেড দোতালা বাড়ি দেবে গেছে। এতে  রাত ১টা পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অনুযায়ী নারীসহ ১২ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ ও দমকল বাহিনীর সদস্যরা উদ্ধার কাজ চালাচ্ছেন। আরো হতাহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন,  পাঁচজনকে জীবিত উদ্ধার করেছেন উদ্ধার কর্মীরা। দেবে যাওয়া ঘরগুলোতে আরো মানুষ আটকা পড়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নিহতরা হলেন- আখের রস বিক্রেতা নিজাম খান (৩৫) ও রিকশা চালক মিজান (৩০), সাজেদা বেগম (৪৫) , কল্পনা (২৪), রোকসানা, ফারজানা (১৩), হারুন, সাইফুল, জাকির (৩৫), জ্যোসনা (৪৫), রুনা (২২)। এর মধ্যে এই বাড়ির ম্যানেজার আরবে আলী মা মা সাজেদা এবং মেয়ে ফারজানা। আরেকজনের নাম জানা যায়নি।

নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান (ওসি) এবং ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ।

লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বুধবার বিকেল ৪টার দিকে হঠাৎ করেই পানির নিচে দেবে যায় ডোবার উপরে নির্মাণ করা এই বাড়িটি। বাড়িটিকে সবাই মাস্টার মনিরের বাড়ি নামেই চেনে। বাড়িটিতে মোট ২০টি ঘর রয়েছে। যেখানে নিম্ন আয়ের মানুষ কম টাকায় ভাড়া নিয়ে থাকতো। সবাই শ্রমজীবী হওয়ায় এসময় বাড়িয়ে নারী, শিশু ও বৃদ্ধরা ছিল।

এদিকে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের চৌধুরীপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণের জড়ো হওয়ার আহ্বান জানিয়ে মাইকিং করা হচ্ছে।

সবুজপাতা প্রতিবেদন

Comments