বাংলাদেশের সবচেয়ে সুন্দর সাতটি অফিস !

Print Friendly

সবুজপাতা ডেস্ক,১৬মার্চঃ কাজের জায়গাটি ভালো না হলে কি কাজে মন বসে ? তাই  বাংলাদেশের বড় ছোট বিভিন্ন ধরনের প্রতিষ্ঠান অনেক নতুন এবং আকর্ষণীয় স্টাইলে নিজেদের অফিস গুলোকে সাজাচ্ছেন। সেসব অফিসের মধ্য থেকে সবচেয়ে সুন্দর সাতটি অফিস বাছাই করে নিতে স্টার্ট আপ ঢাকা ‘কুলেস্ট অফিসেস ইন বাংলাদেশ’ নামে একটি অনলাইন কন্টেস্ট আয়োজন করে।২০১৪ সালের ১৫ই অগাস্ট পর্যন্ত ভোটিং চলাকালীন সময়ে অসংখ্য কোম্পানি তাদের প্রতিষ্ঠানের তথ্য এবং অফিসের ছবি পাঠিয়ে অংশ নেয় এই কন্টেস্টে। তাদের মধ্য থেকে সেরা সাতটি অফিসকে বাছাই করেছে এসডি এশিয়া। একনজরে দেখে নেয়া যাক এই অফিসগুলোকে।

NewsCred: newscred-3

কোম্পানির ধরণ- ছোট(৫০ জন) । অফিসের আকার- ১০ হাজার স্কয়ার ফিট । অফিস ডিজাইনার- NewsCred  ঢাকা টিম

১৩ তলা বিল্ডিং এর ৪র্থ, ১০ম এবং ১৩ তলা নিয়েই NewsCred এর অফিস।টিম ওয়ার্ক ও সবার সাথে মিলে কাজ করার সুবিধা চিন্তা করেই সাজানো হয়েছে এদের অফিস।বড় পরিসরে একসাথে বসে এখানকার কাজ করে থাকেন কর্মীরা। একটি টিম হিসেবে কাজ করার জন্য পরিবেশ রয়েছে এখানে।

অফিসটিতে যথেষ্ট পরিমাণ আলো বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা রয়েছে। এমন খোলামেলা পরিবেশেও প্রত্যেক কর্মী নিজেদের মত করে নিজের ডেস্ক সাজিয়ে রাখতে পারেন।প্রতিষ্ঠানটি কর্মীদের প্রেশার মুক্ত রাখতে নামায ঘর, ব্যালকনি, পুল টেবিল এবং পিং পং টেবিলেরও ব্যবস্থা রেখেছে।

আমাদের একটি ফ্লোর এখনও খালি রাখা হয়েছে যেখানে আমরা কনফারেন্স, কোম্পানি ইভেন্ট, ক্লাস ছাড়াও প্রতিদিন বুফেতে দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এই ফ্লোরে যে কোন ধরণের টেক ইভেন্ট করার জন্যও ভাড়া দেয়া হয়।

অফিসের ভেতরের ইন্টিরিয়র ডিজাইন করতে যেয়ে তারা দেশের ঐতিহ্যের কথা মাথায় রেখে ১৩ তলায় একটি বিশাল নকশী কাঁথা সাজানো হয়েছে। একটি বিশ্বমানের কোম্পানি এবং নিজের দেশের ঐতিহ্যের মেল-বন্ধন করে অফিসের সাজ সজ্জা পরিকল্পনা করা হয়েছে।

অফিসের ঠিকানা – গ্রিন গ্র্যান্ডর(৪র্থ, ১০ম ও ১৩তম তলা) প্লট ৫৮/ই, কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ, বনানী, ঢাকা, বাংলাদেশ।

Applebox Films Limited:Applebox

কোম্পানির ধরণ- ছোট (৫০ জন)। অফিসের আকার- ৫ হাজার স্কয়ার ফিট। অফিস ডিজাইনার- সাবিনা ইয়াসমিন।

বাংলাদেশের প্রথম সারির ফিল্ম প্রোডাকশন হাউজ Applebox Films Limited।  নতুনত্ব ও আধুনিকতার মিল-মেশ রেখে তাদের অফিসের ডিজাইন করা হয়েছে। অরগানিক এবং খোলামেলা যায়গার কথা বিবেচনা করে তৈরি করা হয়েছে তাদের অফিস।

পুরো অফিস জুড়েই স্বচ্ছ কাঁচের দেয়াল চোখে পড়বে এবং এতে করে অফিসটাকে দেখতে আরও বড় দেখায়। অফিসের রুমে ঢোকার সাথে সাথে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে বাতি জ্বেলে ওঠে। অফিসের যে কোন কর্নারেই ছোট খাট থিয়েটার হলের মত ব্যাবহার করা যাবে। কর্পোরেট মিটিং এর জন্য অর্গানিক ম্যানারে রুমের ব্যবস্থা আছে এখানে।

এক কথায় বলা যায় অফিসের প্রতিটি দেয়াল দেখেই মনে হয় মজা করে কাজ করার মত পরিবেশ সৃষ্টি করা হয়েছে।

অফিসের ঠিকানা- হাউজ ৪৪/এ, ব্লক বি, রোড ২৩, বনানী, ঢাকা, বাংলাদেশ।

Edward M Kennedy Center: 

emk-1

কোম্পানির ধরণ-  মাইক্রো(১০ জন) অফিসের আকার- ৫ হাজার স্কয়ার ফিট

ওপেন প্ল্যানিং এর মাধ্যমে সাজানো হয়েছে অফিসটি। ৯ম তলার Edward M Kennedy Center এর অফিস থেকে সংসদ ভবনের মনোরম দৃশ্য দেখা যায়।

অফিসের ঠিকানা- মিডাস সেন্টার, ৯ম তলা, প্লট-৫, রোড- ১৬, ধানমন্ডি, ঢাকা-১২০৯

Renata Limited : 

কোম্পানির ধরণ- বড় (৫০ জন) । অফিসের আকার- ১০ হাজার স্কয়ার ফিট। অফিস ডিজাইনার- শাহরিয়ার আলম

ওয়াই-ফাই সুবিধাসহ তিন একর জমির উপর গাছ লতাপাতা ঘেরা রেনেতা পার্কেই Renata Limited এর অফিস অবস্থিত।কগনিশন জোন- নীরবে চিন্তা ভাবনা করার জন্য কগনিশন জোনের ব্যবস্থাও আছে।renata-2-300x201-300x201

আউটডোর কনফারেন্স রুম- কামরাঙ্গা বীথি এবং কাঁঠাল বাগান নামে দুটি আউটডোর কনফারেন্স রুম আছে এখানে। কাঁচে ঘেরা এসব কনফারেন্স রুম চারদিক থেকে খোলা।

হাঁটার জায়গা- অফিসের ভেতরেই ৩৩৫ মিটার হাঁটার রাস্তা আছে। এরিস্টোটেলিয়ান ফ্যাশনে (হাঁটতে হাঁটতে শিক্ষক ছাত্রদেরকে শিক্ষাদান করে থাকে) হাঁটার জন্য রাস্তা আছে এখানে।

আউটডোর জিমনেশিয়াম- কোম্পানিটির কর্মী এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের জন্য জিমনেশিয়ামের যায়গাও রাখা আছে অফিসের ভেতর। জিম করার  অত্যাধুনিক  যন্ত্রপাতিরও ব্যবস্থা আছে এখানে।

কুকি জার

cookie-1-300x199-300x199

কোম্পানির ধরণ- ছোট (৫০ জন)। অফিসের আকার- ৫০০ থেকে ২৫০০ স্কয়ার ফিট। অফিস ডিজাইনার- এশিয়াটিক স্পেস ডিজাইন সলিউসশন্স

খুব ছোট পরিসরে আমাদের অফিসের ডিজাইন করা হয়েছে যেখানে মাত্র ২৩ টি ডেস্কে কর্মীরা কাজ করতে পারেন।খুব লম্বা সময়ের জন্য কর্মীরা যেন কাজ করতে পারে সেভাবে চিন্তা করে ডিজাইন করা হয়েছে আমাদের অফিসকে।কর্মীরা যেন বাসার থেকেও বেশী স্বাচ্ছন্দ্যে কাজ করতে পারে এমন ভাবে তাদের সুযোগ-সুবিধার কথা বিবেচনা করা হয়েছে। আমরা বড় বড় কিউবিকালসের মত ডেস্কের বদলে ছোট ছোট ওয়ার্ক টেবিলের ব্যবস্থা করেছি।সারা অফিস জুড়েই সার্ভিস লোগো থাকায় আমাদের অফিসের নেটওয়ার্ক-বান্ধব পরিবেশের কথা ধারণা করে নিতে পারবে।

ড় বোর্ড রুমের বদলে বড় টেলিভিশন স্ক্রিন, রিমোট কন্ট্রোল কার এমনকি একটু ঘুমিয়ে নেয়ার জন্য আরামদায়ক কুশনেরও ব্যবস্থা আছে।অফিসের এমন পরিবেশ ক্লায়েন্টদের ভাল অভিব্যক্তির পাশাপাশি কর্মীদেরকেও যথেষ্ট কর্মক্ষম রাখে।

অফিসে খাবার পরিবেশনের স্থান এবং ব্যক্তিগত মিটিং এর জন্য প্রাইভেট মিটিং রুমও রয়েছে।

একেক ধরণের কাজের জন্য একেক রকম জায়গার ব্যবস্থা করা হয়েছে। যেমন বসে কাজ করার সুবিধার জন্য মাটিতে বসার জায়গা এবং দাঁড়িয়ে কাজের ক্ষেত্রে ডেস্কে দাঁড়িয়ে কাজ করারও ব্যবস্থা করা হয়েছে।

অফিসের ঠিকানা- হাউজ ৫৯, রোড ১, বনানী, ঢাকা

গ্রামীনফোন লিমিটেড

GP1-300x200-300x200

কোম্পানির ধরণ- বড়(২৫০ জনের বেশী)। অফিসের আকার- ১০ হাজার স্কয়ার ফিটের বেশী

অফিস ডিজাইনার- কনসরটিয়াম অফ ভিস্তারা আইকন আর্কিটেক্ট এর আর্কিটেক্ট মুস্তফা খালিদ পলাশ, আর্কিটেক্ট মোঃ ফয়েজ উল্লাহ, আর্কিটেক্ট মরহুম সাইফুল কাদের।

কাজের সুবিধার্থে ১২ টি ভিন্ন ভিন্ন বিল্ডিং এ গ্রামীণফোনের অফিসগুলোকে একত্রে আনার জন্য ২০০৫ সালে গ্রামীনফোন হেডকোয়ার্টার স্থাপন করা হয়।আমাদের কাজের ধারা অনুযায়ী স্বচ্ছ, খোলামেলা, নতুন নতুন আইডিয়া এবং বিদেশী ক্লায়েন্টদের কথা মাথায় রেখে তাদের অফিসকে ডিজাইন করা হয়েছে। অফিসের সাজ-সজ্জায় ফুটে উঠেছে কোম্পানি কালচার ও মার্কেট ইনোভেশনের ব্যাপারটাও।

খানকার প্রোজেক্ট অনুযায়ী অফিসের পরিবেশকে সাজানো হয়েছে যাকে তারা নাম দিয়েছে ‘প্রোজেক্টাইল এনভায়রনমেন্ট’।টেকনোলজি, আর্কিটেকচারাল স্পেস ও নিউ ওয়ার্ক স্পেস এর!সমন্বয়ে ডিজিইন করা হয়েছে এই অফিসকে। নিয়মিত নতুন নতু঩ পরিবর্তনের মাধ্যমে গ্রামীণফোন নিজেদের অফিসকে ‘নো ওয়াল কোম্পানি’ হিসেবে তুলে ধরেছে।

 অফিসের ডিকানা- জিপি!হাউজ,বসুন্ধরা,বারিধারা,ঢাকা

ভাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশনস লিমিটেড-

Banglalink_03-300x199-300x199

কোম্পানির ধরণ- বড়(২৫০ জনের বেশী)। অফিসের আকার- ১০ হাজার স্কয়ার ফিটের বেশী।অফিস ডিজাইনার-ভিত্তি স্থপতি বৃন্দ লিমিটেড

-জায়গা সংকুলানের জন্য বাটারফ্লাই হানিকম্ব অরিয়েন্টেশনের মাধ্যমে কিউবিকাল ডেস্কের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

-দৃষ্টি নন্দন ও ছিমছাম হিসেবে তুলে ধরতে অফিসের বিভিন্ন স্থানে ছোট ছোট গাছ লাগানো হয়েছে

-বাংলালিংক এর সাধারণ বৈশিষ্ট্যের সাথে মিল রেখে ভেতরের ডিজাইন করা হয়েছে।

– অফিসে ইউনিক ইকো ফ্রেন্ডলি এইচভিএসি( হিট ভেন্টিলেশন এবং এয়ার কন্ডিশনিং) সিস্টেম চালু করা হয়েছে।

-২৪ ঘণ্টা টারশিয়ারি পাওয়ার ব্যাক আপ সিস্টেম রয়েছে এখানে।

– অফিসে ভিডিও প্রোজেকশনের সুবিধাও আছে।

– যে কোন খারাপ পরিস্থিতি সামলে নেয়ার মত সব ব্যবস্থাই করা হয়েছে এখানে।

অফিসের ঠিকানা- টাইগার্স ডেন, হাউজ নং ৪, বীর উত্তম মির শওকত সড়ক, গুলশান ১, ঢাকা।

নিজদের অফিসের ছবি এবং প্রতিবেদনের বর্ণনাসহ প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার জন্য স্টার্ট আপ ঢাকার পক্ষ থেকে সবাইকে জানাই কৃতজ্ঞতা। এখন পাঠকদের জন্য বলছি, এসব সুন্দর সুন্দর অফিসের মধ্য থেকে কোন অফিসটি আপনাদের কাছে সবচেয়ে ভাল লেগেছে?

সুত্রঃ এস ডি এসিয়া

Comments