ভুল তথ্য উপস্থাপন, জলবায়ু ফান্ড নিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে টিআইবি – পরিবেশমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ

4825420355_8463e45595_z.jpg
ঢাকা, বৃহষ্স্পতিবার: জলবায়ু তহবিলের বিষয়ে গবেষণার নামে একটি বেসরকারি সংস্থা ভুল তথ্য উপস্থাপন করে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে মন্তব্য , পরিবেশ ও বনমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এর। সম্প্র্রতি প্রকাশিত টিআইবির প্রতিবেদনকে প্রশ্নবিদ্ধ বলে উল্লেখ করেন তিনি।  জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে যে সকল সাংবাদিক কাজ করেন,তাদের স্ব- ঘোষিত সংগঠন  বাংলাদেশ ক্লাইমেট চেঞ্জ জার্নালিস্ট ফোরামের (বিসিজেএফ) এবং ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশের (আইডিইবি) যৌথ আয়োজনে এক সেমিনারে পরিবেশমন্ত্রী এ কথা বলেন।
এর আগে গত ৩ অক্টোবর ,টিআইবি’র পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করে বলা হয়- ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্স ফান্ড যার অর্থব্যবস্থাপনায় দুর্নীতির ঝুঁকি বাড়ছে। স্বচ্ছতা আর জবাবদিহিতার নিরিখে ঐ সব প্রকল্প পরিচালনায় ত্রুটি তৈরি হচ্ছে বলে সতর্ক করেন,  ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল-বাংলাদেশ এর প্রধান নির্বাহী ড. ইফতেখারুজ্জামান।গতকাল তার উত্তরে  মন্ত্রী বলেন, একটি সংস্থাটি বলেছে, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় জলবায়ু তহবিলের বেশির ভাগ বরাদ্দ পেয়েছে। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় মাত্র ১০ শতাংশের মতো বরাদ্দ পেয়েছে। বেশি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন প্রকল্পে। যে সংস্থা এমন মৌলিক তথ্য ভুলভাবে উপস্থাপন করে, তাদের পুরো গবেষণাই প্রশ্নবিদ্ধ হতে বাধ্য। গবেষণার নামে এমন তথ্য উপস্থাপন দেশের জন্য ক্ষতিকর বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

green_climate_fund
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, জলবায়ু তহবিলের অর্থ বরাদ্দের ক্ষেত্রে এনজিও মনোনয়নে অত্যন্ত স্বচ্ছতা বজায় রাখা হয়। এনজিও নির্বাচন সরকার বা মন্ত্রণালয় করে না। ১৫০টি এনজিওর মধ্যে ৬৩টি এনজিও মনোনীত হয়েছে। এর মধ্যে আমার জেলা চট্টগ্রামের একটিও এনজিও নেই। এমনকি আওয়ামী লীগ নেতাদের অনেক এনজিওর নামও বাদ পড়েছে।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ ক্লাইমেট চেঞ্জ নেগোসিয়েশন দলের প্রধান সমন্বয়ক ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন, বিদেশী অর্থে পরিচালিত কিছু সংস্থা দেশের বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে। জলবায়ু তহবিল নিয়ে দেশের বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় এমনভাবে বলা হচ্ছে যেন এ বিষয়ে কোনো কাজই হচ্ছে না। অথচ বাংলাদেশের গৃহীত বিভিন্ন কার্যক্রমের প্রশংসা করছে বিশ্বের অন্যান্য দেশ। এক্ষেত্রে বাংলাদেশকে রোল মডেল বলছে আন্তর্জাতিক সম্পদায়।
রাজধানীর কাকরাইলে আইডিইবি মিলনায়তনে আয়োজিত ওই সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন আইডিইবির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার এ কে এম এ হামিদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিসিজেএফের সভাপতি কাওসার রহমান, ২০১১ সালের ডারবান জলবায়ু সম্মেলনের পর পরিবেশ মন্ত্রীর উপস্থিতিতে গঠিত হয় এই ক্লাইমেট চেন্জ জার্নালিস্ট ফোরাম।
নিজস্ব প্রতিবেদক

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top