নিষেধাজ্ঞার পর পদ্মা-মেঘনায় ইলিশ ধরতে নেমেছেন জেলেরা

elish-0120140501131007.jpg

চাঁদপুর,১০ অক্টোবরঃ প্রজনন মৌসুমের ১৫ দিন বন্ধ থাকার পর শনিবার থেকে আবারো পদ্মা মেঘনাসহ ইলিশ বিচরণের পাঁচটি অভয়াশ্রমে মাছ ধরা শুরু হয়েছে।

নিষেধাজ্ঞার সময় পেরিয়ে যাওয়ায় সকাল থেকেই দলবেঁধে ইলিশ শিকারে নেমেছেন জেলেরা। ১৫ দিন পর আবারো মাছ ধরা শুরু হওয়ায় আনন্দিত তারা।

চাঁদপুরের মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিজ্ঞানীর মতে, ইলিশ ধরা বন্ধ থাকায় প্রতিদিন দেড়কোটি থেকে দু’কোটি পরিমাণ ইলিশ রক্ষা পেয়েছে। এদিকে এই মাছ শিকারকে কেন্দ্র করে ফের সচল হতে শুরু করেছে মৎস্য বন্দরগুলো।

মা ইলিশ রক্ষায় গত ২৫ তারিখ থেকে ১৫ দিনের জন্য ইলিশ মাছ ধরা, মজুদ এবং পরিবহন নিষিদ্ধ করেছিল সরকার।

শুক্রবার মধ্যরাতে নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার পরপরই নৌকা ও জাল নিয়ে নেমে পড়ে জেলেরা।

সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর এলাকার জেলে মো. হানিফ, আবু ছৈয়াল ও কাশেম খাঁ বলেন, ১৫ দিন তাদের বেশ কষ্টে কাটাতে হয়েছে।

আশ্বিনে ভরা পূর্ণিমায় ইলিশ প্রচুর ডিম পাড়ে। এজন্য পূর্ণিমার আগের ও পরের ১৫ দিনকে ইলিশের প্রজনন মৌসুম হিসেবে ধরা হয়। এ সময়ে মা ইলিশ উপকূলীয় এলাকা থেকে ডিম ছাড়ার জন্য পদ্মা-মেঘনায় চলে আসে।

ইলিশের উৎপাদন বাড়াতে কয়েক বছর ধরেই এ সময়ে নদীতে মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে সরকার।

এদিকে নিষেধাজ্ঞার সময় মাছ শিকারকালে মোট ২৯১ জেলেকে আটক, ৮ লাখ ৩৬ হাজার মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল ও ৮শ’ ২৯ কেজি ইলিশ জব্দ করার কথা জানান চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. শফিকুর রহমান।

সবুজপাতা প্রতিবেদক

scroll to top