কাপ্তাইয়ে মাল্টা চাষের নতুন দিগন্ত

2015-09-18_2_337026.jpg

রাঙ্গামাটি, ১৮ সেপ্টেম্বর: পার্বত্য জেলার পাহাড়ি ভূমিতে মাল্টা চাষে সফলতা অর্জনের পর এবার কৃষি গবেষকরা কাপ্তাইয়ে পাহাড়ের সমতল এলাকাগুলোতে মাল্টা চাষে সফলতা দেখিয়েছেন।
খাগড়াছড়ি জেলার নয়নাভিরাম মাল্টা বাগান ইতোমধ্যে সারাদেশে তোলপাড় ফেললেও এতদিন সকলের বদ্ধমুল ধারণা ছিল শুধু পাহাড়েই মাল্টা চাষ করা যায়। কিন্তু এই ধারণা ভুল প্রমাণ করে দিয়ে কাপ্তাই উপজেলায় অবস্থিত রাইখালীর কৃষি গবেষণা কের্ন্দের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা পাহাড়ের সমতল এলাকায় মাল্টা চাষে সফলতা দেখিয়েছেন।
সম্প্রতি রাঙ্গামাটি কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা এবং কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা সমতল জায়গার এসব মাল্টা দেখে আভিভুত হয়ে তারা গবেষকদের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।
কাপ্তাই কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা জানান, আমাদের দেশের পাহাড়ি এলাকায় ভালো মাল্টা চাষ হলেও পাহাড়ি সমতলের মাটিতে সাধারণত মাল্টা গাছ হয় না। পাহাড়ের সমতলে মাল্টা হবে না এটাই ছিল সবার বদ্ধমূল ধারণা। কিন্তু ঐ ধারণাকে ভুল প্রমাণ করে আমরা পাহাড়ের সমতলে মাল্টা চাষ করতে পেরেছি।’
বাগান পরিদর্শন করে কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইসরাত জাহান পান্না বলেন, ‘মাল্টা বাগান এতটা সফলতা পেয়েছে চোখে না দেখলে বুঝতে পারতাম না।’ পাহাড়ের সমতলে মাল্টা চাষে বিপ্লব আনায় তিনি কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানান।
কেন্দ্রের কর্মকর্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ের সমতলে লাখ লাখ একর জমি অনাবাদি পড়ে আছে। ব্যক্তি ও সংস্থা পর্যায়ে পাহাড়ের সমতলে কেউ মাল্টা চাষ করতে আগ্রহী হলে গবেষণা কেন্দ্রের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ সহায়তা দেয়া হবে।

scroll to top