বন ও বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে টাস্কফোর্স গঠন

task-force.png

সবুজপাতা ডেস্ক, ৩০ মেঃ বনভূমি দখল, বনজসম্পদ পাচার এবং বন্যপ্রাণী বিলুপ্তি প্রতিরোধে ২৩ সদস্যবিশিষ্ট একটি টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে এ টাস্কফোর্স গঠিত হয়। পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ ট্রাস্কফোর্সের যাবতীয় সাচিবিক দায়িত্ব পালন করবেন।

দেশের বনজসম্পদ পাচার এবং বন্যপ্রাণী নিধন প্রতিরোধে বিভাগীয় এবং জেলাপর্যায়েও কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত হয় বৈঠকে।

ট্রাস্কফোর্সের সদস্য হিসেবে রয়েছেন— মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, মহাপুলিশ পরিদর্শক, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের মহাপরিচালক, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা অধিদফতরের মহাপরিচালক, বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের মহাপরিচালক, আনসার-ভিডিপির মহাপরিচালক, প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা মহাপরিদফতরের মহাপরিচালক, র্যা পিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়নের মহাপরিচালক, বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন করপোরেশনের চেয়ারম্যান, ছয়টি বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার এবং প্রধান বন সংরক্ষক।

ট্রাস্কফোর্সের কার্যপরিধিতে রয়েছে- বনভূমি দখল রোধ, দেশের যাবতীয় বনজসম্পদ পাচার, বন্যপ্রাণী নিধন প্রতিরোধ সম্পর্কিত বিষয়ে সমন্বয় সাধন, আটক বনজসম্পদ এবং বন্যপ্রাণী বিষয়ক বিরোধ নিষ্পত্তিকরণেও ভূমিকা পালন প্রভৃতি।

একই সঙ্গে বন আইন, বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন এবং অন্যান্য সংশ্লিষ্ট আইনের সংশোধন, পরিবর্তন এবং পরিবর্ধন করার ক্ষেত্রেও এ টাস্কফোর্স গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত ও সুপারিশ প্রণয়ন করবে।

জাতীয় এই টাস্কফোর্স তিন মাস অন্তর সভা করবে।

scroll to top