সবুজ সুরক্ষায় তরুনদের অংশগ্রহন বাড়ছে

Works-for-green-Bangladesh.jpg

ঢাকা: পরিবেশের সুরক্ষা, আর পরিচ্ছন্নতার কাজকে এগিয়ে নিতে ভিন্ন আমেজে উৎসব পালনের নজির সৃষ্ঠি করছে তরুন রা। এবার পহেলা বৈশাখে তেমন-ই কিছু নজির স্থাপন করেছে বেশ কিছু সংগঠন।কেন্দ্রীয় ভাবে রমনা বটমূল আর মঙ্গলশোভাযাত্রার পথ ধরে পরিচ্ছনতা কার্যক্রম চালিয়েছে যখন পরিবর্তন চাই এর ব্যানারে কিছু তরুন, তখন একই ধরনের কাজ করেছে ওয়ার্ক ফর গ্রীন বাংলাদেশ নামের ব্যানারে আরো কিছু তরুন, রবীন্দ্র সরোবরে।

Works for Green Bangladesh 2

এই কাজের উদ্যোক্তা মহি ইউ খান মামুন সবুজপাতাকে বলছিলেন, ‘আমরা কাজ শুরু করি, বিকাল ৩.৩০ থেকে, শেষ করি বিকাল ৬.৩০ মিনিট।আমাদের সাথে ৪৪ জন ভলেন্টিয়ার ছিল।আমাদের মূল উদ্দেশ্য ছিল মানুষকে সচেতন করা, যাতে কেউ যত্রতত্র ময়লা আবর্জনা না ফেলে। আমরা কাজ শুরু কারর পর এক মুক্তিযোদ্ধা হাসতে হাসতে বলেন বাবা আজ তো বান্ধবী নিয়ে গুরার দিন, তা না করে তোমরা আবর্জনা পরিষ্কার করছ! ওনার নাম মস্তাফিজুর রহমান, পরে তিনি ও আমাদের সাথে কিছুক্ষন ছিলনে, ওনার অনুভুতি ছিল দেখার মত’।

 ‘আসুন আমাদের শহরটাকে আর্বজনা মুক্ত রাখি’ স্লোগানকে সামনে রেখে সোমবার ১লা বৈশাখ ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবরের আশে পাশের এলাকা গুলোতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালিয়েছে আমরা ওয়ার্কস ফর গ্রীন বাংলাদেশের ভলেন্টিয়ারা। ওয়ার্কস ফর গ্রীন বাংলাদেশ একটি ভলেন্টিয়ার সংগঠন।

 ১লা বৈশাখ ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবরে প্রচুর জনসমাগম হয়, দিনের শেষে দেখা যায় ময়লা-আর্বজনায় ভরে যায়। তাই ওয়ার্কস ফর গ্রীন বাংলাদেশ এর ভলেন্টিয়ারা জনবহুল এই এলাকাতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানোর মাধ্যমে নতুন বছরে নতুন দায়িত্ব তুলে নেয় নিজেদের কাধে।  ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবরের আশে পাশের এলাকা গুলোতে পরিষ্কার- পরিচ্ছন্নতা এবং খোলা উদ্যানের ময়লা, আবর্জনা সংগ্রহ করে নিকটস্থ ডাসবিনে এবং সিটি কর্পোরেশনরে নিদ্ধারিত স্থানে ফেলেছে। আগামীতে ও ওয়ার্কস ফর গ্রীন বাংলাদেশ এই কার্যক্রম অব্যহত রাখবে।

নিজস্ব প্রতিবেদন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top