সমুদ্রের বুকে তৈরি হচ্ছে এক মাইল দীর্ঘ ভাসমান শহর!

stern_high.jpg

stern_high

সবুজপাতা ডেস্ক, ১ ডিসেম্বর: যুগ যত এগোচ্ছে প্রযুক্তি ততোই সমৃদ্ধির শিখরে আসীন হচ্ছে, আমরা স্থলে সু-উচ্চ ভবন সহ আরও অনেক স্থাপনা দেখলেও এবার তৈরি হচ্ছে সাগরের বুকে এক মাইল দীর্ঘ Freedom Ship নামের ভাসমান শহর! Freedon Ship 1 বর্তমানে বিশ্বে স্থাপত্য শিল্পীদের অসাধারণ সর্ব কীর্তিকে ছাড়িয়ে যেতে এবার তৈরি হচ্ছে Freedom Ship নামের ভাসমান শহর! যেখানে থাকবে আলাদা বিমান বন্দর, হাসপাতাল, স্কুল, কলেজ, পার্ক, শপিং মল সহ আরও অনেক কিছু। মানুষ এতদিন ধরে আকাশ, ভূমি, পুকুর কিংবা নদী সব জায়গায় নানান স্থাপনা তৈরি করলেও এবার মানুষ সমুদ্রে বুকে তৈরি করতে যাচ্ছে এমন এক ভাসমান শহর যা কিনা ১ মাইল দীর্ঘ এবং সেখানে সকল সুবিধাই রয়েছে।

PD*728140

তবে ঠিক কবে নাগাদ এই দানবীয় প্রকল্পের কাজ শুরু হবে তা জানানো হয়নি, কিন্তু প্রস্তাবিত এই প্রকল্পের জন্য বাজেট ধরা হয়েছে, ১০ বিলিয়ন ডলার এবং এর আনুমানিক ওজন ধরা হয়েছে ২.৭ মিলিয়ন টন! এর মানে হচ্ছে এই বিশাল সাইজের অবকাঠামো কোন বন্দরে প্রবেশ করতে পারবেনা একই সাথে কোন নদীতেও নয়। এই জাহাজ তৈরির পর সেখানে ৫০,০০০ পরিবারকে স্থায়ী ভাবে থাকতে দেয়া হবে, তাদের জন্য সেখানে সকল নাগরিক সুবিধা প্রদান করা হবে। ভাসমান এই জাহাজের বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সরবরাহ করা হবে জলবিদ্যুৎ প্রকল্প থেকে।

Freedom-Ship-4

এই প্রকল্প তৈরির প্রস্তাব দেয়া হয়েছে আমেরিকার ফ্লোরিডার কোম্পানি Freedom Ship International, প্রস্তাব অনুযায়ী এই বিশাল জাহাজ যেহেতু কোন বন্দরে ভিড়তে পারবেনা সেহেতু সেখানে থাকা বাসিন্দারের কোন প্রয়োজনে কোম্পানির অন্যান্য যাত্রীবাহী জাহাজে করে স্থল ভাগে আনা নেয়া করা হবে একই সাথে এই বিশাল ভাসমান নগরীর নিজের বিমান বন্দরে থাকা বিমানে করেও যাত্রী আনা নেয়া করা হবে।

freedom

যদিও ফ্রিডম শিপ এখনও পরিকল্পনার মাঝেই আছে তবে খুব শীগ্রই এর জন্য ইনভেস্টর পাওয়া গেলেই কাজে নেমে যাওয়া হবে। হয়ত খুব বেশি দেরি নেই আমরা সমুদ্রের বুকে একটি বিশাল ভাসমান শহরে মানুষ স্থায়ী ভাবে বসবাস করতে দেখব।

bay_interior_low

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top