HomeNo Category‘পরিবেশ ধ্বংষ করে কয়লা উত্তোলন হলে আবারও জীবন দিয়ে রুখবে জনগণ’

‘পরিবেশ ধ্বংষ করে কয়লা উত্তোলন হলে আবারও জীবন দিয়ে রুখবে জনগণ’

সবুজপাতা ডেস্ক, ২৬ আগস্ট: ফুলবাড়ি দিবস আজ। ২০০৬ সালের এই দিনে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে দিনাজপুরেরফুলবাড়ি কয়লাখনি না করার দাবিতে সেখানে সর্বস্তরের মানুষ বিক্ষোভে ফেটেপড়েন। বহুজাতিক কোম্পানি এশিয়া এনার্জির ফুলবাড়ি অফিস ঘেরাও কর্মসূচিচলাকালে তত্কালিন বিডিআর ও পুলিশের গুলিতে নিহত হন ৩ জন। গুলিবিদ্ধ হয়শতাধিক মানুষ। এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ সুজাপুরের বাবলু রায়, সাহাবাজপুরেরপ্রদীপ সরকারের মতো অনেকেই এখনও পঙ্গুত্বের অসহনীয় যন্ত্রণা বয়েবেড়াচ্ছেন। ২৬ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট জনতার আন্দোলন সংগ্রামে উত্তাল ছিলফুলবাড়িসহ ফুলবাড়ি খনি এলাকা।

এ সময় আন্দোলনকারিদের দাবির মুখে বিডিআরপ্রত্যাহার করা হয়। তবে ব্যাপক সংখ্যক পুলিশ ফুলবাড়িতে অবস্থান করলেওকার্যত তারা ছিল নিরব দর্শকের ভূমিকায়। এরই মধ্যে ২৮ আগস্ট এশিয়া এনার্জিরসুবিধাভোগী হিসেবে চিহ্নিত কয়েকজনের বাড়িঘর ভাংচুর চালিয়ে পুড়িয়ে দেয়বিক্ষুব্ধ জনতা।এ বিষয়ে কথা বললে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী জানান, আবারও যদি পরিবেশ ধ্বংষ করে সরকার বা কোন কোম্পানী এমন উদ্যোগ নেয় তবে জীবন দিয়ে হলেও আমরা তা রুখে দিব।

06গণআন্দোলনের মুখে তত্কালিন ৪ দলীয় জোট সরকারেরপক্ষ থেকে ৩০ আগস্ট পার্বতীপুর উপজেলা অডিটরিয়ামে সমঝোতা বৈঠক অনুষ্ঠিতহয়। বৈঠকে ছয় দফা চুক্তি স্বাক্ষর হয়। ছয় দফা চুক্তির মধ্যে ছিল এশিয়াএনার্জিকে ফুলবাড়ি ও দেশ থেকে বহিষ্কার, উন্মুক্ত পদ্ধতির কয়লাখনিফুলবাড়িসহ দেশের কোথাও না করা, পুলিশ-বিডিআরের গুলিতে নিহতদের পরিবারকেক্ষতিপূরণ প্রদান, আহতদের প্রয়োজনীয় চিকিত্সার ব্যবস্থা, গুলি বর্ষণসহহতাহতের প্রকৃত কারণ উদঘাটনে তদন্ত কমিটি গঠন, শহীদের স্মৃতিসৌধ নির্মাণসহএশিয়া এনার্জির দালালদের গ্রেফতার ও শাস্তি প্রদান, আন্দোলনকারিদেরবিরুদ্ধে দায়ের করা সকল মামলা প্রত্যাহার এবং নতুন করে মামলা না করা। তবেপরবর্তীতে ছয় দফা চুক্তির আংশিক বাস্তবায়ন হলেও এখনো পুরোপুরি বাস্তবায়িতহয়নি।

ফুলবাড়ি দিবস উপলক্ষে তেল- গ্যাস- খনিজ সম্পদ ওবিদ্যুত্-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদশহীদুল্লাহ এবং সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ এক বিবৃতিতে বলেছেন, ফুলবাড়ি চুক্তি বাস্তবায়ন রাষ্ট্রের দায়। এর অন্যথা করার কোন পথ নেই।

দিবসটিপালন উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। তেল- গ্যাস- খনিজ সম্পদ ওবিদ্যুত্-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির উদ্যোগে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচিঅনুষ্ঠিত হবে ফুলবাড়ি ও ঢাকায়।

No comments

Sorry, the comment form is closed at this time.